সেরা পুলিশের খেতাব পাওয়ার পরদিন ঘুষ নেয়ার সময় ধরা

গত ১৫ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) ছিল ভারতের স্বাধীনতা দিবস। ওই দিন ভারতের শুল্ক বিষয়ক মন্ত্রী ভি শ্রীনিবাস গৌদের হাত থেকে সেরা পুলিশ কনস্টেবলের পুরস্কার পান তিনি।

খেতাব পাওয়ার পর তাকে নিয়ে বেশ কিছু গণমাধ্যমে প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়। ঠিক সেই ঘটনার একদিন পর আবারও তিনি খবরের শিরোনাম কিন্তু সেটা ঘুষ নেয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পড়ার কারণে।

ঘটনাটি ঘটে ভারতের তেলেঙ্গানা প্রদেশে। ওই কনস্টেবলের নাম পাল্লে থিরুপাতি রেড্ডি। তিনি রাজ্যের মাহবুব নগর পুলিশ স্টেশনে কর্মরত।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারতের দুর্নীতি দমন ব্যুরো (এসিবি) ওই পুলিশ কনস্টেবলকে গতকাল শুক্রবার (১৬ আগস্ট) ঘুষ নেয়ার সময় আ’টক করে। তিনি সেসময় এক ব্যক্তির কাছ থেকে ১৭ হাজার রুপি ঘুষ নিচ্ছিলেন। সেই অর্থের বিনিময়ে তিনি তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা গ্রহণ করবেন না বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

রমেশ নামের অভিযোগকারী দাবি করেন যে, তাকে নিয়মিত ওই পুলিশ কর্মকর্তার দ্বারা নিগ্রহের শিকার হচ্ছিলেন। বৈধ কাগজপত্র থাকা সত্ত্বেও তাকে বালু পরিবহনের জন্য নিয়মিত ওই পুলিশ কনস্টেবলকে ঘুষ দিতে হতো। রেড্ডি নামের ওই পুলিশ সদস্যকে এসিবি আদালতে হাজির করার পর হাজতে পাঠানো হবে।

প্রসঙ্গত, গত মাসে ভারতের দুর্নীতি দমন ব্যুরো অভিযান চালিয়ে এক শুল্ক কর্মকর্তার বাড়ি থেকে ৯৩ লাখ ৫০ হাজার রুপি এবং ৪০০ গ্রাম স্বর্ণ জব্দ করে। তার দুই বছর আগে ওই শুল্ক কর্মকর্তা সেরা তহশিলদারের খেতাব পান। এক কৃষকের কাছ থেকে ৪ লাখ রুপি ঘুষ গ্রহণের সময় তাকে হাতেনাতে আ’টক করা হয়।