‘সুন্দর’ পুরুষের চেয়ে একজন ‘দায়িত্বশীল’ পুরুষ বেশি সুন্দর

শোবিজ অঙ্গনের তারকাদের একের পর এক ঘর ভাঙার খবরের মাঝে বেশ ব্যতিক্রম নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও মডেল-অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা দম্পতি।

একজন সুন্দর পুরুষের চেয়ে জীবনে একজন দায়িত্বশীল পুরুষ বেশি সুন্দর হয়- এমনটাই মন্তব্য করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। ফেসবুক হ্যান্ডেলে স্বামী মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সঙ্গে একটি ছবি জুড়ে দিয়ে কার্যত একজন দায়িত্বশীল স্বামীর প্রতি ভালোবাসা ও কৃতজ্ঞতাবোধ প্রকাশ করেছেন তিশা।

তিশা বলছেন, একজন সুন্দর পুরুষের থেকে, জীবনে একজন দায়িত্বশীল পুরুষ বেশি সুন্দর হয়। কারণ এই মানুষটা জানে কিভাবে প্রিয় মানুষটাকে যত্ন করে আগলে রাখতে হয়! কিভাবে অপর পাশের মানুষটাকে সম্মান দিয়ে হয়, অপর পাশের মানুষটা দেখতে যেমনই হোক না কোন কালো, খাটো, নাক বোঁচা? এই নিয়ে কখনো চোখে চোখ রেখে প্রশ্ন করবে না অন্তত!

দায়িত্বশীল পুরুষের স্বভাবত কর্তব্য কেমন হতে পারে সেটাও বর্ণনা করেছেন তিনি।

তিশা লিখেছেন, তারা জানে সৌন্দর্য সারা জীবন থাকে না মানুষের! তারা প্রিয় মানুষটার মনটাকে ভালোবাসে সব সময় তার মায়াতে আচ্ছন্ন হয়ে। একটা মেয়ে যখন পরিবার, বন্ধুবান্ধব সব রেখে চলে যায় নতুন এক পরিবেশে।

তখন সে ভেতরে ভেতরে খুব একাকিত্ব অনুভব করে কাউকে কিছু বলতে পারে না! ঠিক তখন যদি প্রিয় মানুষটা মানসিক শান্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়, সাপোর্ট দেয়, তখন মনে হয় কষ্ট বলতে কিছু নেই দিন শেষে।

সুন্দর পুরুষের থেকে একজন দায়িত্বশীল পুরুষ মানুষ বেশি দামি উল্লেখ করে তিশা বলেন, টাকা আর সৌন্দর্য দিয়ে তো অনন্তপক্ষে সুখ পাওয়া যায় না! আপনি যখন ফুটপাত দিয়ে হেঁটে চলেন, মানুষটা আপনাকে বাঁ দিতে রাখে কোন জানেন? পেছনের শোঁ শোঁ করে আসা গাড়িগুলো জানি এসে আপনাকে আঘাত না করতে পারে।

আপনার থেকে সে প্রিয় মানুষটা আপনাকে বেশি ভালোবাসে হারানোর ভয় করে। আপনার সেই প্রিয় মানুষটা জানে, সে একটু ভালোবাসলে, আপনি তাকে কয়েক গুণ বেশি ভালোবাসা ফেরত দেবেন।

কিছু মানুষ ভালোবাসার কাঙ্গাল হয় তারা বেশি কিছু চায় না শুধু চায় প্রিয় মানুষটার থেকে! সে চায় তার মতো করে বুঝুক, জানুক, দুইজনের মন-মানসিকতা এক রকম হলে আর কী লাগে।